শিরোনামঃ
বোরহানউদ্দিনে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-৭ লালমনিরহাটে চেয়ারম্যানের উপর হামলা আটক ১ ভোলা জেলার বোরহানউদ্দিন থানায় ০২ বছরের সাজা প্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার। বোরহানউদ্দিনে পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের ৮ দফা দাবীতে মানববন্ধন। হাতীবান্ধায় বসতবাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ পাটগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় ব্যবসায়ির মৃত্যু নাটোরে জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত মাগুরায় সুদের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে এক পাষণ্ড স্বামী তার স্ত্রীকে ঋণদাতার হাতে তুলে দিয়েছেন বলে অভিযোগ নবীগঞ্জে নিখোঁজের চার দিন পর আবেদ উল্লাহ সেজুর লাশ উদ্ধার কালীগঞ্জে নির্মাণ শ্রমিকদের মিলনমেলা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩৮ অপরাহ্ন
Notice :
ডোমেইন হোস্টিং সহ মাত্র 5 হাজার টাকায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানান।আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু, Our Bd It তে আপনাকে স্বাগতম। আপনি কি সাংবাদিক? নিজের একটা অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানাতে চান? তাহলে আপনি ঠিক জায়গাতেই এসেছেন।Our Bd It আপনার চাহিদা মোতাবেক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানিয়ে দিবে। Our Bd It শুধু অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানিয়েই দায়িত্ব শেষ করে ফেলে না, সব সময় আপনার বন্ধুর মত আপনার পাশে থাকবে ইন শা আল্লাহ।আরো বিস্তারিত জানতে Our BD It এর ফেসবুক পেজে মেসেজ দিন।Our BD It এর ফেসবুক পেইজ লিংক https://facebook.com/ourbdit.official

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

পল্লী চিকিৎসকের অবহেলায় নাঙ্গলকোটে গৃহবধূর মৃত্যু!

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৩৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২০
inbound7993750676669774074

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

বাংলাদেশের অনেক গ্রাম এখনো পল্লি চিকিৎসক বা কোয়ার্ক দের উপর নির্ভরশীল।কারন প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য কোয়ার্করা বিভিন্ন যানবাহনযোগে রোগীর বাড়িতে পৌছায়।বিভিন্ন সময় প্রাথমিক ভাবে উত্তম চিকিৎসা দিলেও যোগ্যতাহীন এই চিকিৎসকদের অবহেলায় মাঝে মাঝে অনেক রোগী প্রানও হারান।উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়ে হেলথ অফিসাররা নিজেদের ডাক্তার পরিচয় দিয়ে গ্রাম বাসীর বিশ্বাসকে পুজি করে এই ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে দিব্যি।

এরকম ই এক ঘটনা ঘটেছে,কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার সাতবাড়িয়া ইউনিয়নে। পল্লী চিকিৎসকের অবহেলার কারণে তানজিলা আক্তার (২৩)নামে এক গৃহবধূর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। গত ১৪ই অক্টোবর রোজ বুধবার ভোর ৪:৩০ এর দিকে ফেনী সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। জানা যায় এর আগের দিন রাত ১১:৩০ মিনিটের দিকে তানজিলা আক্তার বমি ও পেট ব্যাথা জনিত করণে গুরুতর অসুস্থতা বোধ করে। এমতাবস্থায় তাকে জরুরি ভিত্তিতে প্রাথমিক চিকিৎসার দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু এত রাতে বাড়ি থেকে হাসপাতাল অনেক দূরে হওয়ায় তার বাড়ির লোকজন তাদের গ্রামের পল্লী চিকিৎসকদের সাথে ফোনে যোগাযোগ করে। কিন্তু তারা সকলেই তাকে চিকিৎসা দিতে অস্বীকৃতি জানায়।যার ফলে রাতে অনেক ছোটাছুটি করেও তাকে কোন ধরনের প্রাথমিক চিকিৎসা দিতে পারে নি। সর্বশেষ সকাল বেলা তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে সে মারা যায়।

তানজিলা আক্তারের বড় ভাই প্রবাসী মোবারক হাসান সি এন নিউজকে অভিযোগ করে বলেন, আমি রাতে আমার গ্রামের ৩/৪ জন ডাক্তারকে অনেক আকুতি করে বলেছিলাম,”আমার বোন মারা যাচ্ছে চিকিৎসার অভাবে,আপনারা একটু চিকিৎসার ব্যাবস্থা করেন”।কিন্তু তারা কেউই আমার ডাকে সাড়া দেয় নি।যার ফল স্বরুপ আজ আমার বোন এখন আমাদের মাঝে নেই। উনারা তখন আমাকে সাহায্য করলে হয়তো আমার বোনটিকে এইভাবে মরতে হতো না। তারাই আমার বোনের মৃত্যুর জন্য দ্বায়ী। আমি প্রশাসনের নিকট তাদের সকলকে বিচার চাই।

তানজিলার এক সহপাঠী ও গ্রামবাসী বলেন, “গ্রামের কোয়ার্করা চিকিৎসার ব্যাপারে একদম ই উদাসীন। গ্রামে কোনো হাসপাতাল অবস্থিত না থাকায় গ্রামের অধিকাংশ মানুষ এসব পল্লি চিকিৎসকদের শরনাপন্ন হতে হয়।মানুষের বিশ্বাসকে পুজি করে তারা ব্যাবসা করছে ও ভুল চিকিৎসায় হারাচ্ছে প্রাণ”

গ্রামবাসীরা আরো অভিযোগ করেন” গ্রাম থেকে ফেনী পর্যন্ত যেতে যেতেই পদুয়া রাস্তার মাথায় উনি মারা যায়।
রাস্তা খারাপের কারনে ইমারজেন্সি যেতে পারেনাই।
অতিরিক্ত সময় নেয়ার কারনে হয়তো বাচানো যায়নাই। অই রাস্তার সংস্করণ ও হচ্ছেনা বহু বছর ধরে! কর্তৃপক্ষের অবহেলা দৃষ্টির অবসান চাই “

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।