শিরোনামঃ
নাটোরে জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত মাগুরায় সুদের টাকা পরিশোধে ব্যর্থ হয়ে এক পাষণ্ড স্বামী তার স্ত্রীকে ঋণদাতার হাতে তুলে দিয়েছেন বলে অভিযোগ নবীগঞ্জে নিখোঁজের চার দিন পর আবেদ উল্লাহ সেজুর লাশ উদ্ধার প্যারিসের সাথে সম্পর্ক ছিন্নের দাবিতে ঢাকায় বিক্ষোভ তামান্নার গ্রেফতার দাবিতে মহাসড়কে লাশ নিয়ে বিক্ষোভ অবরোধ,মন্ত্রীর আশ্বাসে প্রত্যাহার পৃথিবীতে যখন চলছে ভাইরাসের কালো থাবা তখনও থেমে নেই বাংলাদেশের উন্নয়ন মোতাহার হোসেন এমপি নাটোরের লালপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, আহত ১০ মাধবপুরের বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত কালিগঞ্জে মাদকদ্রব্য সহ ৩ জন গ্রেফতার জাতীয় সাংবাদিক ঐক্য ফোরাম লালমনিরহাট জেলা কার্যকরী কমিটি গঠন
বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ০২:৩০ পূর্বাহ্ন
Notice :
ডোমেইন হোস্টিং সহ মাত্র 5 হাজার টাকায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানান।আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু, Our Bd It তে আপনাকে স্বাগতম। আপনি কি সাংবাদিক? নিজের একটা অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানাতে চান? তাহলে আপনি ঠিক জায়গাতেই এসেছেন।Our Bd It আপনার চাহিদা মোতাবেক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানিয়ে দিবে। Our Bd It শুধু অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানিয়েই দায়িত্ব শেষ করে ফেলে না, সব সময় আপনার বন্ধুর মত আপনার পাশে থাকবে ইন শা আল্লাহ।আরো বিস্তারিত জানতে Our BD It এর ফেসবুক পেজে মেসেজ দিন।Our BD It এর ফেসবুক পেইজ লিংক https://facebook.com/ourbdit.official

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

লক্ষ্ণীপুর জেলা সুতারগোপটা বাজার এর অসহায় নদী ভাঙ্গা মানুষ এর জন্য গনকবর করার জন্য সাহায্য কমনা

মোঃ-ফারুকউদ্দিনফারভেজ / ৭৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
IMG 20200924 130102

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

রিপোর্টার : মোঃ-ফারুক উদ্দিন ফারভেজ
শাহাব উদ্দিন বাজার, কমলনগর,লক্ষ্মীপুর।

একটি ব্যতিক্রম সংস্থা
যাদের নিজস্ব একটা লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো আর সেই লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হলো দুনিয়াই ও আখেরাত অর্জন করা।

কিন্তু মুনাফা অর্জন ছাড়াও যে সমাজে এমন কিছু সংস্থা আছে তা আমরা অনেকেই জানিনা বা জানতে প্রয়োজনবোধ করিনা।

অথচ এই ভালো কাজেই আমাদের ইহকাল ও পরকালে নাজাতের ব্যাবস্হা করবে।

আর সেই লক্ষ্যে লক্ষীপুর সদর থানার, ভবানীগন্জ ইউনিয়নের, পূর্ব চরমনসার (সুতারগোপটা বাজারের)
বেশ কিছু যুবক ছেলেরা মানব কল্যাণের জন্য একটি সেবামুলক সংস্থা গড়ে তুললো।

তাদের সংস্থার নাম “ভুমিহীন গণকবর ও সমাজসেবা সংস্থা” তাদের এই সংস্থার উদ্দেশ্য হলো একটা ভুমিহীন মানষ যখন মারা যায় তখন তাকে তাদের নিজ দায়িত্বে দাফনের সকল কাজ সম্পন্ন করা।

সংস্থার সধারন সম্পাদক আব্দুর রহমান কে জিজ্ঞেস করা হয় যে তারা কেন এই মহৎ উদ্যোগ হাতে নিলেন?
এই গনকবর কাদের জন্য??
জবাবে তিনি বলেন, লক্ষীপুর সদর মহাসড়কের দুই পাশে সরকারি জায়গায় হাজারো মানুষ বসবাস করে।
যাদের নাই কোন জায়গাজমি নাই। রাস্তার পাশে কোন রকম জায়গা নিয়ে একটা ছোট্ট ঘর করে তাতে তাদের জীবন পার করে। তাও আবার বড় বড় নেতাদের কাছ বা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছ থেকে লিজ নিয়ে এরা বসবাস করে। আব্দুর রহমান কে আরো জিজ্ঞেস করা হয় যারা এই রাস্তার পাশে বাস করে তাদের পূর্বের বাড়ি কোথায় ছিলো?

জবাবে তিনি বলেন এদের বেশিরভাগই নদী ভাঙ্গা পরিবার। একসময় এদের সব ছিলো বাড়ি ছিলো ঘর ছিলো কিন্তু আল্লাহ আজ সব কেড়ে নিয়ে পথের ভিখারি করে দিলো। তিনি আরো বলেন কমলনগর, রামগতি,আলেকজান্ডারে প্রতি বছর নদী ভাঙ্গা বহাল রয়েছে যার কারনে যারা গরীব অসহায় তারা হয়তো জমি নিতে পারেনা তাই বাধ্য হয়ে রাস্তার পাশে কোন রকম ঠাঁই নেয়। আর বেশিরভাগই দেখা যায় চৌরাস্তা থেকে তোরাবগন্জ বাজার পর্যন্ত এই এরিয়াতে। অনেকসময় দেখা যায় রাস্তার পাশে থাকার কারনে শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ পর্যন্ত লোক গাড়ি দূর্ঘটনায় মারা যায় ও যাদের কবরের যাইগা নাই তাদের জন্য
তখনি তাদের কবর দিতে বেশিরভাগই সমস্যাই পড়তে হয়,যা একজন মৃত ব্যাক্তির জন্য খুব কষ্ট দায়ক।

আমরা আমাদের এই ভুমিহীন গণকবর ও সমাজ সেবা সংস্থার মাধ্যমে কিছুটা হলেও মৃত ব্যাক্তির ও গরীব মানুষ এর জন্য শান্তি বয়ে আনতে পারবো বলে মনে করি।

সভাপতি মাফুজুর রহমান কে তাদের সংস্থার জমি, টাকা পয়সার পরিমান জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন দেখেন, আমরা সবে মাত্র এই সংস্থাটি গড়ে তুলেছি, তাছাড়া আমরা যারা এই সংস্হার সদস্য তারা প্রত্যেকেই নদী ভাঙ্গা। আনাদের এখনো বড় কোন মুলধন হয়নি তবে আমরা মাসিক একটা চাঁদার ব্যবস্হা করেছি যেখানে মাসিক ধরা হলো সদস্য প্রতি ১০০ টাকা বর্তমানে আমাদের সদস্য সংখ্যা প্রায় ৬০-৭০ জন। আপাদত এই চাঁদাই আমাদের মুলধন। আমাদের মোট ১০০,০০০ লক্ষ টাকার মত জমা হয়েছে যা দিয়ে জমি কেনা সম্ভব না। তবে শীঘ্রই জমি কেনা হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ। আর এর জন্য আমরা সমাজ,ছাত্র, চাকরিজীবী, প্রবাসী তথা সর্ব স্তরের সাহায্য কামনা করছি।

তিনি বলেন দেখেন আমরা প্রতিদিন কত টাকা খরচ করে ফেলছি, বাড়ি গাড়ি, দালানকোঠা, জমি জমার মালিক হচ্ছি। কিন্তু একদিন এইসব ছেড়ে আমাদেরকে ঐ অন্ধকার সাড়ে তিন হাত মাটির নিচে চলে যেতে হবে। তিনি বুঝাতে চান এত টাকা পয়সা কিছুই কাজে আসবেনা যদিনা সেগুলো ভালো কোন কাজে ব্যাবহার না করা হয়। তার আবেদন তার সংস্হাটি কোন লাভজনক না তিনি মানব জাতির চির আবাসস্থল কবরের জায়গার জন্য সকলের কাছে সাহায্য কামনা করেন।

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।