শিরোনামঃ
প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টা, ছাত্রলীগ নেতা জেলহাজতে স্বচ্ছতা গ্রুপের পক্ষ থেকে বেকার যুবককে চটপটি বিক্রির ভ্যানগাড়ি প্রদান। মাধবপুর উপজেলা জিয়া সাইবার ফোর্স এর কমিটি অনুমোদিত। ফুলবাড়ীতে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন বরিশালের বানারীপাড়ায় ইয়াবাসহ বেল্লাল পুলিশের খাঁচায়।। নাটোর পৌরসভার বিএনপির মেয়র প্রার্থী হলেন বাবুল চৌধুরি বাংলাদেশে থেমে থাকছে না বাল্যবিবাহ, প্রতিনিয়তই হচ্ছে বাল্যবিবাহ, মোঃ শফিকুল ইসলাম (রাকিব) দিনাজপুর প্রতিনিধি দৌলতখান পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোয়ন পেতে মাঠ দাপাচ্ছেন মেয়র প্রার্থী খোকন। সাংবাদিক জসিম এর খালুর মৃত্যুতে “মানব কল্যাণ সেবা সংঘ”পরিবারের শোক প্রকাশ
শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ১০:১৬ অপরাহ্ন
Notice :
ডোমেইন হোস্টিং সহ মাত্র 5 হাজার টাকায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানান।আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু, Our Bd It তে আপনাকে স্বাগতম। আপনি কি সাংবাদিক? নিজের একটা অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানাতে চান? তাহলে আপনি ঠিক জায়গাতেই এসেছেন।Our Bd It আপনার চাহিদা মোতাবেক অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানিয়ে দিবে। Our Bd It শুধু অনলাইন নিউজ পোর্টাল ওয়েবসাইট বানিয়েই দায়িত্ব শেষ করে ফেলে না, সব সময় আপনার বন্ধুর মত আপনার পাশে থাকবে ইন শা আল্লাহ।আরো বিস্তারিত জানতে Our BD It এর ফেসবুক পেজে মেসেজ দিন।Our BD It এর ফেসবুক পেইজ লিংক https://facebook.com/ourbdit.official

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

কোট চাঁদপুরের আগামী পৌরসভার মেয়র পদপ্রার্থী মীর কাসেম আলী

রিপোটারের নাম / ২৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০২০
received 1532090533644227

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

 

আব্বাস আলী, ঝিনাইদহঃ- ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা যৃবলীগের সাবেক সভাপতি মীর কাসেম আলী দীর্ঘ ৩৪ বছর আ.লীগের রাজনীতিতে নিবেদিত। ১৯৮৬ সালে রাজনীতিতে হাতে খড়ি। শুরুটা হয়েছিল ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে। হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের দুই দুই বার নির্বাচিত সভাপতি। পরবর্তিতে পৌর কাউন্সিলরও নির্বাচিত হয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি ঝিনাইদহ জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য। আওয়ামীলীগের রাজনীতি করতে যেয়ে মামলা হামলার শিকার হয়েছেন অনেক বার। তবুও স্বদালাপী মীর কাশেম আলী আওয়ামীলীগের রাজনীতি বুকে লালন করে দীর্ঘ ৩৪ বছর পার করছেন।

 

একান্ত আলাপচারীতায় মীর কাসেম আলী বলেন, ১৯৮৬ সালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কোটচাঁদপুর উপজেলা শাখার যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদকের পদ নিয়ে তার রাজনীতি শুরু। ১৯৮৭ সালে এরশাদ বিরোধী গণআন্দোলনের ছাত্র ঐক্য পরিষদের সাথে থেকে মূখ্য ভুমিকা পালন কালে তিনি গ্রেপ্তার হন এবং ডিটেন্সশন ভোগ করেন। ১৯৯১ সালে বিএনপি জামায়াত ক্ষমতায় আাসার পর ৮ থেকে ১০টি মিথ্যা মামলা হয় তার বিরুদ্ধে। ওই সময় বিএনপি জামায়াত বিরোধী আন্দোলন থেকে তাকে দুরে রাখতে ৭বার গ্রেফতার করে পুলিশ। একই সালে তিনি কোটচাঁদপুর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি নির্বাচিত হন।

 

১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর সে সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সব মামলা থেকে অব্যাহতি পান এই নেতা। ১৯৯৭ সালে তিনি পৌর সভার কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। ২০০১ সালে যুবলীগের উপজেলা শাখার সম্মেলনের প্রস্তুতি কমিটির আহবায়কের দায়িত্ব পালন করেন।

 

স্থানীয় আওয়ামীলীগের অধিকাংশ নেতা কর্মীরা মীর কাসেম আলীকে একজন দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ দাবী করে অভিন্ন বক্তব্যে তারা বলেন, আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা ত্যাগী নেতা কর্মীদের কখনোই নিরাশ করেন না। দলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের তিনি ভাল কিছু উপহার দেন সব সময়। মীর কাসেম আলীকেও তিনি বিমুখ করবেন না বলে ওই সকল নেতা-কর্মীরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

received 2820068614934428

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।