• কৃষি

    বৈশাখের পূর্বেই হঠাৎ ঝড় ও শিলাবৃষ্টিতে আম ও ইট ভাটা মালিকদের ক্ষতি ।

      প্রতিনিধি ৫ এপ্রিল ২০২১ , ১:২৪:১০ প্রিন্ট সংস্করণ

     রবেল আলী,নাটোর জেলা প্রতিনিধিঃবৈশাখ মাস মানেই ঝড় বৃষ্টি হওয়াটা বাংলাদেশের আবহাওয়ায় একটি চিরাচরিত নিয়ম। কিন্তু বৈশাখ মাস না আসতেই চৈত্র মাসেই হঠাৎ নাটোর সহ আশপাশের জেলা গুলোতেও হয়েছে ঝড় ও শিলাবৃষ্টি। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আম ও ইট ভাটা গুলো।

    আপনি কি সাংবাদিক? বাজেটের মাঝে প্রফেশনাল অনলাইন নিউজ পোর্টাল বানাতে চাচ্ছেন? তাহলে Coder Boss হতে পারে আপনার গর্বিত সহযোগী। বাজেটের মাঝেই প্রফেশনাল অনলাইন নিউজ পোর্টাল বানাতে যোগাযোগ করুন Coder Boss এর সাথে।   Coder Boss এর ফেসবুক পেইজ লিংকঃ https://facebook.com/CoderBossBD

    গতকাল ২১ শে এপ্রিল (রবিবার) প্রতিদিনের মত উত্তপ্ত রোদের ঝলকানি দিয়ে দিন শুরু হলেও হঠাৎ দুপুর পর বাতাস ও বৃষ্টি শুরু হয় । এ যেন অবাক করার মতই কান্ড কেননা ঝলমলে রোদ দেখতে দেখতেই কালো মেঘর সাথে গর্জন পরে বাতাস ও শিলাবৃষ্টি যেন ধুয়েমুছে দিয়ে গেছে প্রকৃতিকে।গরম আবহাওয়া একটু কমেছে এনেছে কিছুটা শীতলতা । কৃষকের মনেও লেগেছে কিছুটা প্রশান্তির হাওয়া কারন অনেক দিন যাবৎ নেই বৃষ্টির দেখা আবাদি জমি গুলোও যেন ফেলেছে শান্তির নিশ্বাস।ফসলের ক্ষেত উর্বর হয়েছে। ক্ষেতগুলো যেন বৃষ্টির আশায় চাতক পাখির মত চেয়েছিল । ফসলি ক্ষেতের মতই বৃষ্টিপাতের কারনে উপকৃত হয়েছে আমের গোড়ার।

    বৃষ্টিতে আমের উপকার হলেও ঝড়ও বাতাস ও শিলাবৃষ্টিতে নষ্ট হয়েছে অনেক আমর গুটি। অন্য দিকে আমের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ইট ভাটা মালিকরাও ।লালপুরের একজন ইট ভাটা মালিক বলেন, এবারের বছরে প্রথম থেকে কোন বৃষ্টি না হওয়ায় এ পর্যন্ত কোন ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়নি অথচ আজকে বুঝে না উঠতেই হঠাৎ বৃষ্টিতে ক্ষতি হয়েছে কয়েক লক্ষ টাকার ইট ।এতে করে ইটের কিছু মূল্য বৃদ্ধি হতে পারে বলে জানান ঐ ইটভাটা মালিক।

    আরও খবর

    Sponsered content